অপারেশন কিলো ফ্লাইট
মিলিটারি অপারেশন

অপারেশন কিলো ফ্লাইট

মুক্তিযুদ্ধের ধারাবাহিকতায় আমরা দেখেছি গেরিলারা কিভাবে ধীরে ধীরে সড়ক ও জলপথ ধ্বংস করে পাকিস্তানী সেনাদের চলাচল ও রসদ সরবরাহে বাধা সৃষ্টি করছিল।কিন্তু পাকিস্তানিদের জন্য গুরুত্বপূর্ন স্থাপনাগুলো কঠোর পাহারার কারণে তখনো ধ্বংস করা যায়নি।পশ্চিমাদের দেয়া অত্যাধুনিক অস্ত্রের বিরুদ্ধে হালকা অস্ত্র দিয়ে বাঙালি গেরিলাদের পক্ষে এইসব স্থাপনা ধ্বংস করা ছিল খুবই কঠিন। Read more…

India

অপারেশন ট্রাইডেন্ট: বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধ যখন ভারতকে প্রতিশোধ নেয়ার সুযোগ এনে দেয়!

১৯৭১ সালের ৪ ডিসেম্বর ছিল ভারতের দুঃখ ভুলার দিন।১৯৬৫ সালে পাকিস্তান নৌবাহিনীর হাতে ব্যাপক মার খাওয়ার পর দুর্বলতার কারণে সামান্যতম জবাব ও দিতে পারে নি ভারত।সেই দুঃখ ভুলতে পারে নি তারা।তাই যুদ্ধের পরপরই ভারতীয় নৌবাহিনীতে ডিফেন্স বাজেট বেশি বরাদ্দ দেয়া হয়।ব্যাপক সংস্কার এর অংশ হিসেবে ইন্ডিয়ান নেভিতে যোগ হয় সোভিয়েত Read more…

মেজর হায়দার
মুক্তিযুদ্ধ

মেজর হায়দার

আবু তাহের মোহাম্মদ হায়দার  (মেজর হায়দার নামে খ্যাত) জন্ম:১২ জানুয়ারি, ১৯৪২ – মৃত্যু: ৭ই নভেম্বর, ১৯৭৫,ছিলেন একজন বাংলাদেশি মুক্তিযোদ্ধা, যিনি প্রথমে দুই নং সেক্টরের সহ-অধিনায়ক ও পরে সেক্টর কমান্ডারের দায়িত্ব পালন করেন। একজন গেরিলা কমান্ডার হিসাবে বাংলাদেশের স্বাধীনতা যুদ্ধে অভূতপূর্ব অবদান রাখার জন্য তিনি বীর উত্তম খেতাবে ভূষিত হন। বাবা আলহাজ মোহাম্মদ ইসরাইল। মা আলহাজ হাকিমুন নেসা । রিবারের দুই ভাই ও তিন বোনের Read more…

অপারেশন হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল - হিট এ্যান্ড রান
মুক্তিযুদ্ধ

অপারেশন হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল – হিট এ্যান্ড রান

১৭ তরুণের এক অদম্য মুক্তিযোদ্ধার দল। স্বাধীনতাকামী বাঙালী জাতির মুক্তি এবং পশ্চিম পাকিস্তানীদের বিরুদ্ধে ঢাকায় চালাতে আসেন প্রথম গেরিলা অপারেশন – ‘অপারেশন হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল – হিট এ্যান্ড রান’। সম্বল মাত্র ১২টি হ্যান্ড গ্রেনেড। লক্ষ্য একটাই – ঢাকায় ত্রাস সৃষ্টি করা। বিশ্ব ব্যাংকের প্রতিনিধিরা উঠবেন হোটেল ইন্টার কন্টিনেন্টালে। এর আশেপাশে ৬ Read more…

দ্বিতীয় ইন্টারকন্টিনেন্টাল অপারেশন
মুক্তিযুদ্ধ

দ্বিতীয় ইন্টারকন্টিনেন্টাল অপারেশন -এক অবিশ্বাস্য গেরিলা অপারেশন

আগামী ১১ই আগস্ট,  দ্বিতীয় ইন্টারকন্টিনেন্টাল অপারেশন  ৪৭তম বার্ষিকী। সাড়ে চার দশক আগে এদিন, সকল নিরাপত্তার বেড়াজাল ছিন্ন করে পরিচালিত হয় এক অবিশ্বাস্য গেরিলা অপারেশন। হোটেল ইন্টারকন্টিনেন্টাল, নামটির সাথে জড়িয়ে আছে বাংলাদেশের অভ্যুদয়ের এক অবিচ্ছেদ্য ইতিহাস। ১৯৭১ সালে এখানেই দুই দফা (৯ই জুন এবং ১১ই আগস্ট) আক্রমণ চালিয়েছিলেন সেক্টর দুইয়ের অধীন Read more…

খেলার সাথে রাজনীতি মিশেছিল
মুক্তিযুদ্ধ

খেলার সাথে রাজনীতি মিশেছিল

খেলার সাথে রাজনীতি মিশেছিল ১৯৮০ সালের জানুয়ারিতে। পাকিস্তান দল প্রথম এসেছিল বাংলাদেশ সফরে, আসলে পরের ভারত সিরিজের প্রস্তুতি হিসেবে। বিমানবন্দর থেকে নেমে ইমরান খান উপস্থিত জনতাকে উদ্দেশ্য করে “নমস্তে” উচ্চারিত করেন, প্রকৃতপক্ষে যা বোঝাতে চাইলেন আদতে দশ বছর বয়সী বাংলাদেশ ভারতেরই একটা অংশ। এরপরে আরেক খেলোয়াড় বড়ে মিয়াঁ তথা জাভেদ Read more…

ইউ কে চিং মারমা (বীর বিক্রম)
মুক্তিযুদ্ধ

পার্বত্য চট্টগ্রামের অগ্নিপুরুষ ইউ কে চিং মারমা (বীর বিক্রম)

বাঙালী নারীদের ওপর পাকি সৈন্যদের বর্বর নির্যাতনের প্রতিবাদে, পাকিস্তানী হার্মাদ বাহিনীর ১ কমান্ডার’সহ সাত সেনাকে ধরে পুরুষাঙ্গ কেটে হত্যা করে রাস্তায় ফেলে রেখেছিলেন ইউ কে চিং মারমা (বীর বিক্রম)। আমাদের গৌরব ও বেদনার মহান মুক্তিযুদ্ধের সময় এমন প্রতিশোধ আর কেউ নিয়েছে বলে জানা নেই। এবং এই অতি প্রয়োজনীয় কাজটি করে দেখিয়েছেন Read more…

ক্র্যাক প্লাটুনের সেই দুর্ধর্ষ অপারেশন
মিলিটারি অপারেশন

অপারেশন ফার্মগেট : ক্র্যাক প্লাটুনের সেই দুর্ধর্ষ অপারেশন

গত ৮ই আগস্ট ছিল ‘অপারেশন ফার্মগেট’ খ্যাত দুর্ধর্ষ গেরিলা অভিযানের ৪৭ তম বার্ষিকী। অবরুদ্ধ ঢাকার বাসিন্দা’দের ভেতর তখন শুধুই নির্যাতনের ভয় ও মৃত্যুশঙ্কা। তবুও, মানুষ আশাবাদী হতে পেরেছিল সেদিন। কারন, মৃত্যুপুরী ঢাকায় স্বাধীনতাকামী দুর্ধর্ষ গেরিলাদের দ্বিতীয়বারের মতো সরব ও প্রত্যক্ষ উপস্থিতি। ৪৭ বছর পূর্বের এই দিনটিতেই পাকি হার্মাদ’দের উপস্থিতির মাঝে Read more…

 মে. জেনারেল খালেদ মোশাররফ 
মুক্তিযুদ্ধ

মেজর জেনারেল খালেদ মোশাররফ

মেজর জেনারেল খালেদ মোশাররফ বাংলাদেশের সামরিক ইতিহাসের শ্রেষ্ঠ সেনানীদের মধ্যে অন্যতম। আজকের এ পর্বে তার ব্যাপারেই কিছু তথ্য জেনে নেওয়া যাক চলুন… মেজর জেনারেল খালেদ মোশাররফ ১৯৩৭ সালে জামালপুর জেলায় জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৫৭ সালে তত্কালীন পাকিস্তান সেনাবাহিনীতে কমিশনপ্রাপ্ত হন।এরপর তিনি নানান জায়গা হতে প্রশিক্ষণ গ্রহন করে নিজ দক্ষতাকে এক Read more…

কর্নেল আবু তাহের
মুক্তিযুদ্ধ

কর্নেল আবু তাহের

কর্নেল আবু তাহের আবু তাহের ১৯৩৮ সালের ১৪ ই নভেম্বর ব্রিটিশ ভারতের আসামের বদরপুরে জন্মগ্রহন করেন। তার পৈতৃক নিবাস নেত্রকোনা জেলায়। তার বাল্যকাল কেটেছে আসামে। শৈশব হতেই তিনি ছিলেন ডানপিটে ও অসীম সাহসী। তার বয়স যখন মাত্র ১৪ অর্থাৎ ১৯৫২ সালের ভাষা আন্দোলনের পরবর্তী সময়ে তিনি তার কয়েকজন সহপাঠী নিয়ে Read more…