★★★ মিসাইল কিভাবে লক্ষ্যে আঘাত হানে?
.
ডিফেন্স সাইট গুলোতে যারা নবাগত তাদের একটি কমন প্রশ্ন এটা। মিসাইল লঞ্চ করলে কিভাবে ঠিক কাঙ্খিত লক্ষ্যে আঘাত হানে ? চলুন এ ব্যাপার টাই কিছুটা পরিস্কার করা যাক।
.
মিসাইল তার লক্ষ্যে আঘাত হানতে পারে তার গাইডেন্স সিস্টেমের কারনে। আমরা যে বন্দুক দেখি তার থেকে যে গুলি বের হয় তা আনগাইডেড। অর্থাৎ গুলি ছোড়ার পর তা সোজা যাবে আর গুলি বের হওয়ার পর তার ওপর আর কোন নিয়ন্ত্রন থাকবে না। কিন্তু মিসাইলের ক্ষেত্রে ব্যাপার টা ভিন্ন। মিসাইল গাইডেড,অর্থাৎ মিসাইল লঞ্চ করার পরেও এটির গতিপথ নিয়ন্ত্রন করা সম্ভব। আর সেটা সম্ভব হয় গাইডেন্স সিস্টেমের কারনে। প্রচলিত গাইডেন্স সিস্টেম গুলির মধ্যে আছে —
.
♦জিপিএস গাইডেন্স :- এই গাইডেন্স সিস্টেম টা প্রধানত স্যাটেলাইট নির্ভর। মিসাইলের সাথে একটি জিপিএস চিপ সংযুক্ত থাকে। এটি স্যাটেলাইট থেকে নির্দেশনা লাভ করে যে লক্ষ্যবস্তু কোথায় আছে,সেখানে কিভাবে যেতে হবে। ফলে এটি লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম হয়।

♦লেজার গাইডেন্স :- এটি শর্ট রেঞ্জ মিসাইলের ক্ষেত্রে ব্যবহৃত হয়। মিসাইল টির সাথে একটি সেন্সর যুক্ত থাকে। আর মিসাইল নিক্ষেপনের সময় লক্ষ্যবস্তুতে লেজার নিক্ষেপ করা হয় আর মিসাইলের সাথে থাকা সেই সেন্সর লেজার টিকে অনুসরন করে। এভাবে এটি লেজার দ্বারা মার্ক কৃত লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানতে সক্ষম হয়।

♦ইনারশিয়াল গাইডেন্স :- এটি পুরনো গাইডেন্স সিস্টেম। এটিতে মুলত দুই ধরনের গাইডেন্স এর সমন্বয় ঘটে। মিসাইলের ক্ষেত্রে এটিতে পূর্বে থেকেই প্রোগ্রাম করা রাখা হয় মিসাইল টি কিভাবে যাবে,কোথায় কোথায় বাক নিবে ইত্যাদি। একটা নির্দিস্ট দূরত্বে যাওয়ার পর এটি সেকেন্ডারি গাইডেন্স যেমন জিপিএস,লেজার ইত্যাদির সাহায্যে লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হানে।
.
♦ইনফ্রারেড :- এটিকে হিট সিকার ও বলা হয়। এটিতে যে সেন্সর থাকে তা লক্ষ্যবস্তুর সবচেয়ে বেশি তাপ উৎপাদন কারী অংশে গিয়ে আঘাত হানে। যেমন ধরুন,টার্গেট কোন এয়ারক্রাফট। তো এয়ারক্রাফটে তাপ উৎপন্ন করে ইঞ্জিন। তাই মিসাইল টিকে ছোরা হলে এটি ঠিকই গিয়ে সেই ইঞ্জিনেই আঘাত হানবে হিট সিকিং এর মাধ্যমে। তবে এখন আর এটি তেমন ব্যবহার হয় না। কারন এয়ারক্রাফট এ ফ্লেয়ার ব্যবহৃত হয় যার ফলে এটি ইঞ্জিন হতে দূরে এয়ারক্রাফটের বাইরে আরো অধিক তাপ উৎপন্ন করে ফলে মিসাইল ধোকা খেয়ে যায় ও এয়ারক্রাফট রক্ষা পায়।

♦টিভি গাইডেন্স :- এটা বেশ সহজ ও কার্যকরী গাইডেন্স। এটিতে মিসাইলের সাথে ক্যামেরা লাগানো থাকে। অন্যদিকে মিসাইলের অপারেটর মনিটরে মিসাইলের সামনে কি আছে না আছে তা দেখতে পায় ও ক্যামেরার সাহায্যে। তাই অপারেটর ওই ক্যামেরার দৃশ্য অনুযায়ী মিসাইলটিলে সুবিধামত পরিচালিত করে নির্দিস্ট লক্ষ্যে আঘাত হানে। ব্যাপার টা অনেক টা রিমোট কন্ট্রোল গাড়ির মতো।

ধন্যবাদ সবাইকে !

 

Facebook Comments

1 Comment

জন নাথান গ্যারিডেব · December 20, 2017 at 9:45 am

ভাললাগছে

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: