সাল ২০০৬-০৭ এর দিকে বাংলাদেশ নিজ দেশেই এমন অ্যাসাল্ট রাইফেল উৎপাদন এর জন্য উদগ্রীব হয়ে উঠল যা হবে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর স্টান্ডার্ড রাইফেল। তবে গবেষনার মাধ্যমে নতুন প্রযুক্তির অ্যাসাল্ট রাইফেল উদ্ভাবন ও তৈরি ছিলো একটি দীর্ঘ প্রসেস,আর বাংলাদেশের সে কাঠামো না থাকায় সাফল্যও ছিলো অনিশ্চিত। বাংলাদেশ সরকার তাই লাইসেন্সড মেইড রাইফেল এর ব্যাপারেই মন:স্থির করলো। যেহেতু চীন আমাদের সমরাস্ত্রের প্রধান সাপ্লাইয়ার তাই চীন ই এক্ষেত্রে অগ্রাধিকার পায়। চীন হতে বাংলাদেশ তাই টাইপ-৮১ অ্যাসাল্ট রাইফেল এর প্রযুক্তি পেতে পেতে সময় লেগে যায় ২০০৮ অব্ধি। যেহেতু ২০০৮ সালে তার প্রযুক্তি পাই তাই অ্যাসাল্ট রাইফেল টির নামকরন করা হয় BD-08 .

চাইনিজ টাইপ-৮১/বিডি-০৮ মূলত লিজেন্ডারি অ্যাসাল্ট রাইফেল একে-৪৭ এর ভিত্তি করে বানানো হলেও এটিকে বিশেষভাবে ডিজাইন করা হয় যেমন ফিক্সড গ্যাস অপারেটিং সিস্টেমের বদলে ফ্লোটিং সিস্টেম ব্যবহৃত হয়েছে,যার ফলে এর রিকয়েল (গুলি নিক্ষেপের সময়ের ঝাকি) বেশ কম হয় যা এটিকে আরো ভাল ফায়ারিং একুরেসী প্রদান করে। এটিকে একে-৪৭ হতেও উন্নত ও ‘ইউজার ফ্রেন্ডলি’ অ্যাখ্যা দেওয়া হয়। তবে বাংলাদেশের বিডি-০৮ কে টাইপ-৮১ হতেও কিছুটা উন্নত বিবেচনা করা হয়। বিডি-০৮ এ ৭.৬২x৩৯ মি.মির কার্তুজ ব্যবহৃত হয় ও প্রতি মিনিটে ৭০০ এর মতো গুলি ছুড়তে সক্ষম। বিডি-০৮ এর ইফেক্টিভ রেঞ্জ ৪০০-৫০০ মিটার।

বিডি-০৮ নিয়ে কিছু সমস্যার কথা প্রায়ই শোনা যায় যার প্রায় অধিকাংশই ভিত্তিহীন। হ্যা এটা সত্যি এটি পুরনো প্রযুক্তির রাইফেল তবে তা মোটেই ফেলনা নয়,বরং বাংলাদেশী সেনারা আরো বহু অ্যাসাল্ট রাইফেলের ওপর ট্রেনিং লাভ করলেও তারা বিডি-০৮ নিয়ে খুব বেশি অসন্তুষ্ট নয় মোটেই। তবে বিডি-০৮ অল্পতেই গরম হয়ে যায়,৪০ রাউন্ড ফায়ারের পর এতই গরম হয় যে বন্ধ হয়ে যায় এসব ভিত্তিহীন। যেকোন রাইফেল ই গুলি চালাবার সময় গরম হবে,তা ৪০ রাউন্ড না,৪-৫ রাউন্ড গুলি করার পরেই গরম হবে। কিন্তু তার মানে তা ধরা যাবে না বা বন্ধ হয়ে যাবে এমন কিছু নয়।

Bd-08 with Sight

বর্তমানে গাজীপুরের বাংলাদেশ সমরাস্ত্র কারখানায় বিডি-০৮ উৎপাদিত হচ্ছে। বিডি-০৮ এমকে-২ এর পরীকল্পনা থাকলেও তা এখনো কমপ্লিট নয়,দুয়েকটা প্রটোটাইপ ছাড়া এখনো অব্ধি বিডি-০৮ এমকে-২ এর কোন অস্তিত্ব নেই। তাই আপনারা বিভিন্ন পেজ না গ্রুপে বিডি-০৮ এমকে-২ এর যেসব ছবি দেখে থাকেন তা ভুয়া। তবে ধারনা করা হয় যদি বাংলাদেশ সরকার যদি তাড়াহুড়ো না করে আরো বুদ্ধিমত্তার পরিচয় দিত তবে আমরা বিডি-০৮ হতেও উন্নত রাইফেলের প্রযুক্তি পেয়ে দেশে উৎপাদন শুরু করতে পারতাম…….

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: