বাংলাদেশ সেনাবাহিনী। আমাদের সকলের ই গর্বের বিষয়। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কার্যক্রম এর মাধ্যমেই তারা আমাদের মনে এক অন্যন্য স্থান করে নিয়েছেন। যুদ্ধক্ষেত্রে ভয়ংকর এ মানুষ গুলোকে চলুন একটু অন্য চোখে দেখা যাক। আজকের এ পোস্টে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কিছু ছবি দেওয়া হলো যা সাধারন চোখে দেখলে খুবই স্বাভাবিক,কিন্তু যদি এর পিছনের রহস্য জানা যায় তবে তা সকলের কাছেই ভালো লাগার কথা। ছবিগুলোর মাধ্যমে আনন্দ পেলেও এর পাশাপাশি বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রতি আপনার শ্রদ্ধাও যে বেড়ে যাবে তাও নিশ্চিতভাবেই বলা যায়।

ঘটনাটি প্রায় দুই বছর বা তার কিছু সময় আগের। হাতিরঝিল ব্রিজে কয়েকজন বখাটে ছেলে মেয়েদের উত্ত্যক্ত করছিলো। বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর গাড়ি যাচ্ছিলো সে ব্রীজ দিয়েই,এবং তা চোখে পড়ে কয়েকজন সেনাসদস্য এর। বখাটেদের যতই গ্যাং পাওয়ার বা পলিটিক্যাল ব্যাক আপ থাকুক তা কোন কাজেই আসেনি। ইভ টিজিং এর জন্য তাদের অপমানজনক শাস্তি দেয় সেনাসদস্য রা। মাঝরাস্তাতেই কান ধরে উঠবোস করতে হয় ছেলেগুলোকে। ঘটনাটি আমাদের জন্যও একটি মেসেজ দেয়। সেনাবাহিনীর কাজ এর প্রতিবাদ করা ছিলো না,তবুও সামাজিক দায়ে তারা এর প্রতিবাদ করেছে। আমরাও যদি আমাদের নিজ নিজ অবস্থান থেকে এগিয়ে আসি তবে সমাজ টা আরো সুন্দর হতে পারে।

স্থান রজনীগন্ধা গেইট। এই ঘটনাটিও প্রায় দুইবছর আগের। হেলমেট ছাড়া কিছুতেই যেতে দিবে না বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর জনৈক সেনাসদস্য। হয় হেলমেট পড়ুন নয়ত একজন নেমে যান।

২০১৬ সালে গুলশান এ জঙ্গী হামলার পরবর্তী সময়কালীন যখন দেশে জঙ্গীদের উৎপাত বেশি তখন ঈদ এর সময় দেশের কেন্দ্রীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররম এর নিরাপত্তায় সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হয়। ছবিতে নিরাপত্তায় নিয়োজিত দুজন সেনাসদস্যকে দেখছেন। যদি আরেকটু খেয়াল করবেন তবে দেখবেন তাদের দুজনের পায়েই কোন জুতো নেই !

রোহিঙ্গা ক্যাম্পে এ অসাধারণ মুহূর্তটি ক্যামেরা বন্দী করে ফেলে যুগান্তরের জনৈক সাংবাদিক। রোহিঙ্গা ক্যাম্পে কর্মরত এক সেনাসদস্য খাবার সময় এক রোহিঙ্গা শিশুকে তাকিয়ে থাকতে দেখে মায়া হয় ফলে সে নিজ হাতেই খাইয়ে দেয়, আর এ অসাধারন মুহূর্ত টি ক্যামেরা বন্দী হওয়ায় ছড়িয়ে যায় সোশ্যাল।মিডিয়ায়। রোহিঙ্গা ইস্যুতে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর এফোর্টের একটি আইকন ছবি হয়ে উঠে এটি। এত সামান্য,এছাড়াও রোহিঙ্গা ক্যাম্পে দিনরাত সেবা কার্যক্রম চালাচ্ছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী।

“বোন হাত দেন, আমরা হাত ছাড়ব না, আমরা পড়ব কিন্তু আপনাকে পড়তে দেব না।”
.
– সিলেটের আতিয়া মহলে জিম্মি গর্ভবতী মাকে উদ্ধারের সময় বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সেনাসদস্যরা। আতিয়া  মহলে অন্যদের সাথে আটকা পড়ে যান ওই গর্ভবতী মহিলা। ব্যাপক ঝুকি নিয়ে তাকে সে ভবন হতে উদ্ধার করা হয়।

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: