২৮ বছর বয়সী জার্মান সেনাবাহিনীর এক লেফটেনেন্ট Franco Hans হত্যা পরিকল্পনার দায়ে অভিযুক্ত হয়েছেন। তিনি ও তার দু’জন সহযোগী একটি এসল্ট রাইফেলসহ চারটি আগ্নেয়াস্ত্র, ৫০ টি বিস্ফোরক এবং প্রায় ১০০০ রাউন্ড গুলিসহ ধরা পড়েছেন।

তারা জার্মানিতে সিরিয়ান রেফিউজি হিসেবে রেজিস্টার হয়ে ভুয়া পরিচয় নিয়ে টেরোরিস্ট এটাকের পরিকল্পনা করেছিলেন।
তাদের লক্ষ্য ছিল হাই-র‍্যানকিং কিছু রাজনীতিবিদ, যারা জার্মানিতে রেফিউজিদের পক্ষে থাকার জন্য পরিচিত। এদের মধ্যে ছিলেন জার্মান জাস্টিস মিনিস্টার Heiko Maas, সাবেক প্রেসিডেন্ট Joachim Gauck এবং Claudia Roth। মুসলিম জঙ্গি সেজে হামলার মাধ্যমে জার্মান নাগরিকদের রেফিউজিদের ব্যাপারে বিভক্ত করে দেয়া-ই ছিল তাদের উদ্দেশ্য। রিপোর্টে বলা হয় অভিযুক্ত ডানপন্থী “Neo-Nazi”-দের সোশাল মিডিয়ায় বর্ণবাদী কমেন্ট, নাৎসি স্যালুট দিতে দেখা যায়।

মার্কেলের “Open door” পলিসি গ্রহণের পর থেকে জার্মানিতে ডানপন্থী মনোভাব বেড়ে চলেছে। উল্লেখ্য বর্তমানে জার্মানিতে ১২ লক্ষের বেশি শরণার্থী আছে।

Facebook Comments

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

%d bloggers like this: